এক বছরের মধ্যে বাইবেল
সেপ্টেম্বর ১৮


১ করিন্থীয় ১১:১৭-৩৪
১৭. এই আদেশ দেবার জন্য আমি তোমাদের প্রশংসা করি না, কারণ তোমরা যে সমবেত হয়ে থাক, তাতে ভাল না হয়ে বরং খারাপই হয়।
১৮. কারণ প্রথমে, শুনতে পাচ্ছি, যখন তোমরা মন্ডলীতে একত্র হও, তখন তোমাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব হয়ে থাকে, এবং এটা কিছুটা বিশ্বাস করেছি।
১৯. আর বাস্তবিক তোমাদের মধ্যে দল বিভাগ হওয়া আবশ্যক, যেন তোমাদের মধ্যে যারা সঠিক তাদের চেনা যায়।
২০. যাইহোক, তোমরা যখন এক জায়গায় একত্র হও, তখন প্রভুর ভোজ খাওয়া হয় না, কারণ খাওয়ার সময়
২১. প্রত্যেক জন অন্যের আগে তার নিজের খাবার খায়, তাতে কেউ বা ক্ষুধিত থাকে, আবার কেউ বা মাতাল হয়। এ কেমন?
২২. খাওয়া-দাওয়ার জন্য কি তোমাদের বাড়ী নেই? অথবা তোমরা কি ঈশ্বরের মন্ডলীকে অমান্য করছ, এবং যাদের কিছুই নেই, তাদেরকে লজ্জা দিচ্ছ? আমি তোমাদেরকে কি বলব? কি তোমাদের প্রশংসা করব? এ বিষয়ে প্রশংসা করি না।
২৩. কারণ আমি প্রভুর থেকে এই শিক্ষা পেয়েছি এবং তোমাদেরকেও দিয়েছি যে, প্রভু যীশু যে রাত্রিতে সমর্পিত হন, সেই রাত্রিতে তিনি রুটী নিলেন, এবং ধন্যবাদ দিয়ে ভাঙ্গলেন,
২৪. ও বললেন, “এটা আমার শরীর, এটা তোমাদের জন্য; আমাকে স্মরণ করে এটা কর”।
২৫. সেইভাবে তিনি খাওয়ার পর পানপাত্রও নিয়ে বললেন, “এই পানপাত্র আমার রক্তের নতুন নিয়ম; তোমরা যত বার পান করবে, আমাকে স্মরণ করে এটা কর”।
২৬. কারণ যত বার তোমরা এই রুটী খাও, এবং পানপাত্রে পান কর, তত বার প্রভুর মৃত্যু প্রচার কর, যে পর্যন্ত তিনি না আসেন।
২৭. অতএব যে কেউ অযোগ্যভাবে প্রভুর রুটী ভোজন কিংবা পানপাত্রে পান করবে, সে প্রভুর শরীরের ও রক্তের দায়ী হবে।
২৮. কিন্তু মানুষ নিজের পরীক্ষা করুক, এবং এইভাবে সেই রুটী খাওয়া ও সেই পানপাত্রে পান করুক।
২৯. কারণ যে ব্যক্তি খায় ও পান করে, সে যদি তার শরীর না চেনে, তবে সে নিজের বিচার আজ্ঞায় ভোজন ও পান করে।
৩০. এই কারণ তোমাদের মধ্যে প্রচুর লোক দুর্বল ও অসুস্থ আছে, এবং অনেকে মারা গেছে ।
৩১. আমরা যদি নিজেদেরকে নিজেরা চিনতাম, তবে আমরা বিচারিত হতাম না;
৩২. কিন্তু আমরা যখন প্রভুর মাধ্যমে বিচারিত হই, তখন শাসিত হই, যেন জগতের সাথে বিচারিত না হই।
৩৩. অতএব, হে আমার ভাইয়েরা তোমরা যখন খাওয়া-দাওয়ার জন্য একত্র হও, তখন এক জন অন্যের জন্য অপেক্ষা কর।
৩৪. যদি কারও খিদে লাগে, তবে সে বাড়িতে খাওয়া-দাওয়া করুক; তোমাদের একত্র হওয়া যেন বিচারের জন্য না হয়। আর সব বিষয়, যখন আমি আসব, তখন আদেশ করব।